সুযোগ হাতছাড়া করেনি রংপুর রাইডার্স

খেলাধুলা

প্রথমবারের বিপিএলের কথা মনে আছে? খেলোয়াড় নিলামে মাশরাফি বিন মুর্তজাকে কেউই নিতে চাচ্ছিল না নিজের দলে। চোট থেকে উঠে আসা এই খেলোয়াড়কে সাইড বেঞ্চে বসিয়ে রাখা ছাড়া আর কি হবে! তখন খেলোয়াড় নিলামের শেষ মুহূর্তে মাশরাফিকে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স নিজেদের দলে ভিড়িয়েছিল ৪৫ হাজার ডলারে। দলে নেয়ার পরই ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের অধিনায়কের দায়িত্ব কাঁধে তুলে দেয়া হয় তাকে। দলের দায়িত্ব নিয়েই বাজিমাৎ। প্রথমবারই দলকে এনে দেন চ্যাম্পিয়ন ট্রফি।

এই যে তখন থেকে শুরু আর থামেননি তিনি। মাশরাফি যে দলেই খেলেন সে দলই চেষ্টা করেন দ্বিতীয় মেয়াদে তাকে রেখে দেয়ার। যে দলেই খেলেছেন সে দলকেই এনে দিয়েছেন চ্যাম্পিয়ন ট্রফি।গত বিপিএলে খেলেছিলেন রংপুর রাইডার্সের হয়ে। তাদেরও এনে দিলেন চ্যাম্পিয়ন ট্রফিটা।

গত বিপিএল শেষ হওয়ার পরেই অবশ্য রংপুর ফ্রাঞ্চাইজি ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিলেন মাশরাফিকে দলে রেখে দেয়ার ব্যাপারে। অবশেষে সেটাই হলো।প্লেয়ার রিটেইন এর নিয়ম অনুযায়ী একদল সর্বোচ্চ চারজন খেলোয়াড়কে রেখে দিতে পারবে দ্বিতীয় মেয়াদে।

এই সুযোগ আর হাতছাড়া না করে রংপুর রাইডার্স আগামী আসরের জন্য রেখে দিয়েছে মাশরাফি বিন মুর্তজাকে। সঙ্গে ক্রিস গেইল, নাজমুল ইসলাম অপু আর মোহাম্মদ মিঠুনকেও রেখেছে দলটি।গত আসরে শেষ কয়েকটি ম্যাচে দুর্দান্ত খেলেছিলেন গেইল। তারই পুরস্কার হিসেবে এবারও তাকে দলে রাখা হয়েছে।