রাব্বিকে আরেকটা সুযোগ দিতে চান মাশরাফি, কিন্তু……

খেলাধুলা

বাংলাদেশ আজ বিশ্ব ক্রিকেটের নতুন পরাশক্তি। দুই যুগের এই পথচলায় দলের সঙ্গে তিনিই হেঁটেছেন ১৫ বছর। যার নেতৃত্বে নতুন করে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেট তিনি মাশরাফি বিন মুর্তজা। চোটের কাছে হার মানেন নি, অভিমান তাঁকে টেস্ট ও টি-২০ থেকে কিছুটা দূরে সারিয়েছে কেবল, তবে এখনও লাল-সবুজের এই জার্সিটির প্রতি অমোঘ ভালোবাসা আজও নতুন করে স্বপ্ন দেখায় দেশসেরা এই অধিনায়ককে।

তার নেতৃত্বে আরো একটি ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে বাংলাদেশ, আরো একটি হোয়াটওয়াশ উদযাপনের দ্বারপ্রান্তে মাশরাফি। বাংলাদেশের ২৩তম সিরিজ নিশ্চিতের ম্যাচে আরো দুর্বার বাংলাদেশ। ব্যাটে-বলে দক্ষতা দেখিয়ে হেসেখেলেই জিতে নিয়েছে ম্যাচটি। আজ সিরিজের শেষ ওয়ানডের আগে গতকাল দলের ঐচ্ছিক অনুশীলনে ছিলেন না দুটি চোট নিয়েও সিরিজে নেতৃত্ব দেয়া ওয়ানডে অধিনায়ক। সেই সুযোগে মেলে দিলেন আবেগের ডালা, খুলে ধরলেন অভিজ্ঞতার ঝাঁপি। শোনালেন, ‘এখন আমরা ১০ উইকেটে জয়ের কথাও ভাবতে পারি’র সত্যটা।

সাংবাদিকদের বর্তমান দল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ব্যাটিংয়ের চার নম্বরে ব্যাকআপ নেই। পাঁচ নম্বরে ব্যাকআপে আপাতত মিঠুন আছে। আল্টিমেটলি ৬-এ রিয়াদ খেলবে। এখন রিয়াদের ব্যাকআপ খুঁজতে হলে নতুন টিম আনতে হবে। বর্তমানে যারা খেলছেন তাদের পজিশন অনুযায়ী আনা যায়।’

ঘরোয়া ক্রিকেটে ১৫ বছর কাটিয়ে দেওয়ার পর এবার জিম্বাবুয়ে সিরিজে ওয়ানডে দলে ডাক পান ফজলে রাব্বি। মিরপুরে প্রথম ম্যাচে ৪ বল খেলে টেন্ডাই চাতারার লাফিয়ে উঠা বলে আউট হয়েছিলে’। চট্টগ্রামে দ্বিতীয় ম্যাচেও নির্দ্বিধায় তাকে নামায় টিম ম্যানেজমেন্ট। এবার বোধহয় তার স্নায়ুচাপ বেড়েছে আরও। খেলতে পেরেছেন ৫ বল। এবারও রানের খাতা খোলার আগে সিকান্দার রাজার বলে ফিরেছেন স্টাম্পিং হয়ে।

এদিকে ফযলে রাব্বির দুই ম্যাচে ৯ বল খেলে কোন রান নেই। এমন ব্যাটসম্যানের তিন নম্বর ম্যাচে বাদ পড়াটাই স্বাভাবিক। আবার সিরিজ জেতা হয়ে যাওয়ায় আরেকটু ঝুঁকি নেওয়ার অবস্থাও দলের আছে।

শেষ ওয়ানডের আগে ফজলে রাব্বিকে নিয়ে বেশ সহানুভূতিই ঝরল অধিনায়কের কণ্ঠে, ‘আপনি যদি আমাকে দল নির্বাচন করতে বলেন তাহলে ওকে আরেকটি সুযোগ দিতে আমি দ্বিধা করবো না। সত্যি কথা বলতে আমার কাছে মনে হয় সে অনেক বেশি দুর্ভাগ্যবান।’

পরের লাইনে মাশরাফি ইঙ্গিত করেছেন কয়েনের অন্যপ্রান্তের ছবি, ‘আর দ্বিতীয় কথা হল একই সময়ে ধরেন শান্তও (নাজমুল হোসেন) বসে আছে। সেক্ষেত্রে আমাদের সকলেরই চাওয়া থাকবে যে শান্তই খেলুক। এখানেও একটি পয়েন্ট আছে। এখানে আসলে একা বলে কিছু হবে না। সবার সাথে আলোচনার ব্যাপার আছে।’